ঢাকাসোমবার , ২৪ জানুয়ারি ২০২২
  1. আনন্দধারা
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ইসলাম ও জীবন
  4. কৃষি ও অর্থনীতি
  5. ক্যাম্পাস
  6. খুলনা
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প ও কবিতা
  9. গুরুত্বপূর্ণ ওয়েব লিংক
  10. চট্রগ্রাম
  11. চাকুরী বার্তা
  12. জনমত
  13. জাতীয়
  14. ঢাকা
  15. পরিবেশ ও বিজ্ঞান

যেভাবে পেয়ারা চাষ হতে পারে লাভজনক

প্রতিবেদক
বুলেটিন বার্তা
জানুয়ারি ২৪, ২০২২

এক বিঘা (৩৩ শতক) জমিতে বছরে সর্বোচ্চ ২ মে.টন বা ৫০ মন ধান উৎপন্ন হয়। অন্যদিকে একই পরিমাণ জমিতে সর্বনিম্ন ৪ মে.টন বা ১০০ মন পেয়ারা উৎপন্ন হয়। ধান ৬০০-৭০০টাকা/মণ আর পেয়ারা ১৬০০-২০০০ টাকা। তার মানে পেয়ারা চাষে এক বিঘা জমি থেকে বছরে কমপক্ষে ১,৬০,০০০- ২,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত আয় করা সম্ভব৷ আর কেউ যদি সঠিক যত্ন নেয় তাহলে একই জমি থেকে এর ডাবল টাকা উপার্জন করা সম্ভব৷

বর্তমানে যত ধরনের পেয়ারার চাষ হয় তন্মধ্যে থাই পেয়ারা-৭ হলো সবচেয়ে লাভজনক৷ এ পেয়ারার সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হলো এটি বারোমাসি পেয়ারা৷ থাই পেয়ারা-৭ এর আকার লম্বাটে গোলাকার, রঙ হলদে সবুজ, প্রতিটি পেয়ারার ওজন গড়ে ৪০০ থেকে ৫০০ গ্রাম। গাছের উচ্চতা ৬ ফুট থেকে ২০ ফুট। তবে ছাটাই করার মাধ্যমে এর বৃদ্ধি রহিত করে পার্শ্ব বৃদ্ধি করা হয়৷ ফুল ফোটা থেকে ফসল সংগ্রহ পর্যন্ত ৯০ দিন সময় লাগে। বীজ কম ও নরম। এ জাতের পেয়ারা বর্তমানে সব জায়গাতেই ৭০ থেকে ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

থাই পেয়ারা চাষ পদ্ধতিঃ অন্যান্য জাতের পেয়ারার মতোই মধ্য জ্যৈষ্ঠ থেকে মধ্য আশ্বিন মাসে থাই পেয়ারা-৭ এর চারা রোপণ করতে হয়। এ পেয়ারা চাষের জন্য নিকাশযুক্ত বেলে দোআঁশ মাটিই উত্তম। এ পেয়ারার বংশবৃদ্ধির জন্য বীজ থেকে চারা বা গুটি কলম ব্যবহার করা উচিত। ১৩×১৩ ফুট বা ১০×১০ ফুট দূরত্বে এ জাতের পেয়ারার চারা রোপণ করা যায়। তবে বর্তমানে অতিঘন পদ্ধতিতে ৭×৭ ফুট দুরত্বে বা আরো কম দুরত্বেও চারা রোপন করা হচ্ছে৷ এজন্য অবশ্য নির্দিষ্ট সময় পর চারার অগ্রভাগ কেটে দিতে হয়৷ এছাড়া অঙ্গ ছাঁটাই কিংবা ডাল মাটির সাথে নুইয়ে দেয়ার মাধ্যমে ও এর ফলন বৃদ্ধি করা যায়৷ রোপণের আগে ১ হাত দৈর্ঘ্য, ১ হাত প্রস্থ ও ১ হাত চওড়া গর্ত খনন করতে হবে। প্রতিটি গর্তে মাটির সঙ্গে ২০ থেকে ৩০ কেজি পচা গোবর সার বা ১০-১৫ কেজি কেঁচো সার মিশিয়ে গাছ রোপন করে দিতে হবে৷ তারপর পানি দিতে হবে৷ গাছের বয়স ২০-২৫ দিন হলে ৫০ গ্রাম ড্যাপ বা টিএসপি ও ৫০ গ্রাম এমওপি সার চারপাশে রিং করে দিতে হবে যা ১ মাস পর ১০০ গ্রাম আকারে দিতে হবে৷ তারপর গর্তের চারদিকে মাটি দ্বারা উঁচু করে বেঁধে দিতে হবে, যাতে বাইরের পানি এসে গাছের গোড়ায় না জমে। গাছটি যাতে বাতাসে হেলে না পড়ে সেজন্য বাঁশের খুঁটির সঙ্গে হালকাভাবে বেঁধে দিতে হবে। রসের অভাব হলে সেচের ব্যবস্থা করতে হবে। এছাড়া পেয়ারা গাছ থেকে অধিক ফলন পেতে পাঁচ বছরের নিচের একটি গাছে বছরে পচা গোবর ২০ থেকে ২৫ কেজি বা কেঁচো সার ৮-১০ কেজি, ইউরিয়া ২৫০ থেকে ৩০০ গ্রাম, টিএসটি ২৫০ থেকে ৩০০ গ্রাম ও এমওপি ২০০ গ্রাম এবং পাঁচ বছরের ওপর একটি গাছে প্রতি বছর পচা গোবর ২৫ থেকে ৩০ কেজি বা ১০-১২ কেজি কেঁচো সার, ইউরিয়া ৪০০ গ্রাম, টিএসপি ৫০০ গ্রাম, এমওপি ৪০০ গ্রাম সার ব্যবহার করতে হবে। তবে উল্লিখিত পরিমাণ সার সমান দুইভাগে ভাগ করে বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চ বা বর্ষার আগে এবং আগস্ট-সেপ্টেম্বর মাসে বা বর্ষার পরে দুই কিস্তিতে প্রয়োগ করতে হবে। সার প্রয়োগের পর প্রয়োজনে সেচ দিতে হবে। অনেক সময় জিঙ্কের অভাবে পাতার শিরায় ক্লোরোসিস দেখা যায়। বোরনের অভাবে ফুল ফল ঝরে যায়, এজন্য ফুল আসলে ১ গ্রাম/ লি পানিতে জিংক এবং ১ গ্রাম/১ লি পানিতে সলুবোরন সার স্প্রে করতে হবে৷ এরপর ফল আসলে পেয়ারা সংগ্রহের পর ভাঙা, রোগাক্রান্ত ও মরা শাখা-প্রশাখা ছাঁটাই করে ফেলতে হবে। পেয়ারা গাছ প্রতি বছর প্রচুর সংখ্যক ফল দিয়ে থাকে। গাছের পক্ষে সব ফল ধারণ সম্ভব হয় না। তাই মার্বেল আকৃতির হলেই ঘন সন্নিবিষ্ট ফল ছাঁটাই করতে হবে। ভালোভাবে যত্ন নিলে একটি পূর্ণবয়স্ক গাছ থেকে বছরে কমপক্ষে ৩০-৫০কেজি পর্যন্ত ফলন পাওয়া যায়।

আরও পড়ুনঃ  কুড়িগ্রামে দেয়া বঙ্গবন্ধুর ভাষণ এর প্রিন্ট কপি উম্মোচন

ভিটামিন-সি এর দারুন উৎস পেয়ারা, এছাড়া ভিটামিন-বি২, আয়রন, ক্যালসিয়ামও রয়েছে যথেষ্ট৷

কৃষিবিদ শিবব্রত ভৌমিক
কৃষি কর্মকর্তা, কৃষি ইউনিট
পিকেএসএফ এবং সাগরিকা সমাজ উন্নয়ন সংস্থা
ইমেইলঃ siba_bau@yahoo.com

সর্বশেষ - জাতীয়

নির্বাচিত সংবাদ
হাবিপ্রবিতে মহান বিজয় দিবস

বর্নিল আয়োজনে হাবিপ্রবিতে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত

লকডাউনে দিনাজপুর : স্থগিত হাবিপ্রবির পরীক্ষা

অনাবাদী ও পতিত জমি

এসডিএস’র আয়োজনে অনাবাদী জমির ব্যবহার নিশ্চিতে উদ্ধুদ্ধকরণ সমাবেশ

বর্ণিল আয়োজনে হাবিপ্রবিতে ২৪ তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে রাস্তা বন্ধ নিয়ে পিটার হাসের কোনো আলোচনা হয়নি: মার্কিন দূতাবাস

মৃতুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে ধরিয়ে দিলে ১০লাখ টাকা পুরস্কার

শেকৃবিতে দেশীয় প্রযুক্তির মাছের ভাসমান খাদ্য তৈরীর মেশিন উদ্বোধন

ভাষার মাসে মেধার পাশে স্লোগানে হাবিপ্রবি গ্রীন ভয়েসের শিক্ষাসামগ্রী বিতরণ

কালোব্যাজ ধারনের মধ্যদিয়ে হাবিপ্রবিতে মাসব্যাপী শোকাবহ আগস্ট পালনের উদ্যোগ

প্রয়াত কর্মচারী মঞ্জরুলের স্ত্রীর হাতে হাবিপ্রবি উপাচার্যের চেক হস্তান্তর