ঢাকাবুধবার , ২৩ জুন ২০২১
  1. আনন্দধারা
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ইসলাম ও জীবন
  4. কৃষি ও অর্থনীতি
  5. ক্যাম্পাস
  6. খুলনা
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প ও কবিতা
  9. গুরুত্বপূর্ণ ওয়েব লিংক
  10. চট্রগ্রাম
  11. চাকুরী বার্তা
  12. জনমত
  13. জাতীয়
  14. ঢাকা
  15. পরিবেশ ও বিজ্ঞান

গৌরব, সংগ্রাম ও সাফল্যের ৭২ বছরে আওয়ামীলীগ

প্রতিবেদক
বুলেটিন বার্তা
জুন ২৩, ২০২১

গৌরব, সংগ্রাম ও সাফল্যের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ। ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটে জন্ম নেওয়া পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ নামে যে দলটি আত্মপ্রকাশ করেছিল সেদিনের সেই দলটিই হচ্ছে আজকের আওয়ামী লীগ।৭৩ তম বছরে পদার্পনকারী দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের নেতৃত্ব দানকারী উপমহাদেশর প্রাচীন রাজনৈতিক দল হচ্ছে আওয়ামীলীগ। ঐতিহ্যবাহী এ দলটি জন্মলগ্ন  থেকেই মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করে আসছে।বাংলাদেশ  স্বাধীন হওয়ার আগে পূর্ব বাংলার জনগণের অধিকার আদায়ের লক্ষ্য নিয়ে ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন প্রতিষ্ঠা হয় ‘পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ’ নামে। যার সভাপতি ছিলেন টাঙ্গাইলের মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী এবং সাধারণ সম্পাদক ছিলেন টাঙ্গাইলের শামসুল হক। পরবর্তীকালে, ১৯৫২ সালে শেখ মুজিবুর রহমান প্রতিষ্ঠাতা যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক থেকে সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান। পরের বছর ঢাকার ‘মুকুল’ প্রেক্ষাগৃহে পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগের সম্মেলনে তাকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। ১৯৬৬ সাল পর্যন্ত ১৩ বছর সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন শেখ মুজিব। উল্লেখ্য যে পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ ছিলো তৎকালীন পাকিস্তানে প্রথম বিরোধী দল। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই দলটি প্রাদেশিক স্বায়ত্ত্বশাসনের ওপর বিশেষ গুরুত্বসহ ৪২ দফা কর্মসূচি গ্রহণ করে। শুরুর দিকে দলটির প্রধান দাবিগুলোর মধ্যে ছিল রাষ্ট্রভাষা হিসাবে বাংলার স্বীকৃতি, এক ব্যক্তির এক ভোট, গণতন্ত্র, সংবিধান প্রণয়ন, সংসদীয় পদ্ধতির সরকার, আঞ্চলিক স্বায়ত্তশাসন এবং তৎকালীন পাকিস্তানের দু’অঞ্চলের মধ্যে বৈষম্য দূরীকরণ।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর আওয়ামী লীগ প্রথমবারের মত সরকার গঠন করে। ৭৫-এর ১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর ১৯৮১ সালে দেশে ফিরে দলটির হাল ধরেন শেখ হাসিনা। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বাঙালি জাতির হারানো গণতান্ত্রিক অধিকার পুনরুদ্ধারের এক নবতর সংগ্রামের পথে যাত্রা শুরু করে আওয়ামী লীগ। স্বজন হারানোর বেদনা নিয়ে দেশে ফেরার পর থেকেই তিনি নিরলসভাবে দেশের অধিকারহারা মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য নিরবচ্ছিন্ন লড়াই-সংগ্রাম অব্যাহত রেখেছেন শেখ হাসিনা।

আরও পড়ুনঃ  বিএনপির হাত খুন আর হত্যার রাজনীতির রক্তে রঞ্জিত: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগ সভাপতি হিসেবে জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের ফলে দেশে গণজাগরণের ঢেউ জাগে, গুণগত পরিবর্তন সূচিত হয় রাজনৈতিক আন্দোলনের, গণসম্পৃক্ততা বৃদ্ধি পায় সংগঠনের; দেশবাসী পায় নতুন আলোর দিশা। গণমানুষের মুক্তির লক্ষে আন্দোলন-সংগ্রাম করার কারণে তাঁকে বারবার ঘাতকদের হামলার শিকার ও কারা নির্যাতন ভোগ করতে হয়েছে। কিন্তু বাংলার মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের সংগ্রামে তিনি আজো অবিচল থেকে নিরবচ্ছিন্ন প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মানব কল্যাণ, জনগণের প্রয়োজনের সময়ে সাড়া দেওয়া, জনগণের চাওয়া-পাওয়া, আশা-আকাঙ্খা বুঝতে পারা, জনগণের মধ্যে আত্মনিবেদিত কাজ, আধুনিকতা, বিজ্ঞানমনস্কতা এবং অগ্রসর চিন্তা চেতনাই হচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রাণশক্তি। বাংলাদেশের হৃদয় থেকে উৎসারিত এই প্রাণশক্তিই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে জন্মলগ্ন থেকে আজ পর্যন্ত এদেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দলের মর্যাদায় অধিষ্ঠিত রেখেছে। ঐতিহাসিক প্রয়োজনে জনগণের ভেতর থেকে গড়ে উঠেছে জনগণের রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। যার প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রটির ভূখন্ডের সীমানা পেরিয়ে এই উপমহাদেশের অন্যতম বৃহৎ এবং জনসমর্থনপুষ্ট অসাম্প্রদায়িক, প্রগতিশীল, গণতান্ত্রিক, মানব কল্যাণকামী রাজনৈতিক দল হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ তার পরিচিতি অর্জনে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশের কাদা-মাটি গায়ে মাখা খেটে খাওয়া মানুষের কাফেলা হচ্ছে আওয়ামীলীগ। অতীতের মতো বাংলাদেশের ভবিষ্যত ও আওয়ামী লীগের সঙ্গে অবিচ্ছেদ্যভাবে যুক্ত। স্বাধিকার থেকে স্বাধীনতা, সর্বশেষ সামরিক স্বৈরশাসন থেকে গণতন্ত্রে উত্তরণের প্রতিটি অর্জনের সংগ্রাম-লড়াইয়ে নেতৃত্বদানকারী একটিই রাজনৈতিক দল, তা হচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। বাঙালী জাতির প্রতিটি অর্জনেরও দাবিদার প্রাচীন ও সুবিশাল এ রাজনৈতিক দলটি। পরাধীনতার শৃঙ্খল ছিন্ন করে হাজার বছরের কাঙ্খিত বাঙালি জাতির স্বাধীনতা লাভসহ সকল মহতী অর্জনের নেতৃত্বে ছিল জনগণের প্রাণপ্রিয় সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ; যার মহানায়ক ছিলেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আজ তাঁরই সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা বাঙালি জাতির সমৃদ্ধ ভবিষ্যৎ রচনার আলোকোজ্জ্বল পথ তথা আর্থ-সামাজিক-সার্বিক মুক্তির লক্ষ্যে কাজ করে চলেছেন।

আরও পড়ুনঃ  এসআই রাহাত আলমের নেতৃত্বে ফুলবাড়ীতে ক্লু-লেস হত্যা মামলার দুই আসামী গ্রেফতার

দীর্ঘ উত্থান পতনের ধারাবাহিকতায় দলটি এখন এক যুগেরও বেশি সময় ধরে বাংলাদেশের শাসনক্ষমতায় আছে এবং বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম কোনো দল হিসেবে টানা তিন মেয়াদে সরকার পরিচালনা করছে আওয়ামী লীগ।

এ.মান্নান/বার্তাবুলেটিন

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস

নির্বাচিত সংবাদ

ফুলবাড়ীতে ৬ জুয়াড়ী আটক

শেরে বাংলা গোল্ডেন এওয়ার্ড পেলেন হাবিপ্রবি অধ্যাপক ডা. ফজলুল হক

প্রশাসনের বাড়ি ফিরে যাওয়ার অনুরোধ: বাস দাবি শিক্ষার্থীদের

অক্টোবরে থেকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দিবে ইউজিসি

হাবিপ্রবির সিএসই ও বিএস অনুষদে নতুন ডীন নিয়োগ

সাবেক ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের মৃত্যুতে কুড়িকৃবি ভিসির শোক প্রকাশ

অধ্যক্ষ মতিউর রহমান এর মৃত্যুতে কুড়িকৃবি উপাচার্যের শোক প্রকাশ

ন্যানো সোসাইটির আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ভাবনা শীর্ষক আলোচনা

বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে হাবিপ্রবি গ্রীন ভয়েসের বৃক্ষরোপণ ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

গাড়ী চালকদের জন্য পার্কিং সুবিধা সম্বলিত বিশ্রামাগার করা হবে

হাবিপ্রবিতে মহান বিজয় দিবস

বর্নিল আয়োজনে হাবিপ্রবিতে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত