ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৪ ডিসেম্বর ২০২৩
  1. আনন্দধারা
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ইসলাম ও জীবন
  4. কৃষি ও অর্থনীতি
  5. ক্যাম্পাস
  6. খুলনা
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প ও কবিতা
  9. গুরুত্বপূর্ণ ওয়েব লিংক
  10. চট্রগ্রাম
  11. চাকুরী বার্তা
  12. জনমত
  13. জাতীয়
  14. ঢাকা
  15. পরিবেশ ও বিজ্ঞান

ইমিরেটাস প্রফেসর আফজাল হোসেন এর হাবিপ্রবি এফপিই ল্যাব পরিদর্শন

প্রতিবেদক
বুলেটিন বার্তা
ডিসেম্বর ১৪, ২০২৩

হাবিপ্রবি প্রতিনিধি: দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদীয় এফপিই এর বিভিন্ন গবেষণাগার ও উদ্ভাবনী কার্যক্রম পরিদর্শন করেন বিশ্ববিদ্যালয়টির সাবেক উপাচার্য ও রাষ্ট্রপতি কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত রিজেন্ট বোর্ড সদস্য ইউজিসি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ফেলো-২০২১ ইমিরেটাস প্রফেসর ড. এম আফজাল হোসেন।

মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর ২০২৩) দুপুর সাড়ে 12.30 টায় ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদীয় ডিন অফিসে বিএসসি ইন ফুড প্রসেস এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি সংশ্লিষ্ট তিনটি বিভাগের শিক্ষকমন্ডলীর সাথে গবেষণা ও শিক্ষা কারিকুলাম বিষয়ে মতবিনিময় করেন সাবেক এই উপাচার্য। এ সময় ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি, ফুড প্রসেসিং এন্ড প্রিজার্ভেশন ও ফুড সায়েন্স এন্ড নিউট্রিশন বিভাগের বিদ্যমান গবেষণা কর্মের অগ্রগতি ও সাফল্যের কথা শুনেন এবং বাংলাদেশের বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলে উৎপাদিত বিভিন্ন কৃষিজ উৎপাদন হতে ফুড ট্রান্সফরমেশন বা এক খাদ্যকে একাধিক ধরনের খাদ্যে রূপান্তর নিয়ে গবেষণায় এগিয়ে নিয়ে যাওয়া বিষয়ে পরামর্শ প্রদান করেন। সভায় উপস্থিত ছিলেন ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের বর্তমান ডিন প্রফেসর ড. মফিজউল ইসলাম, ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. সুলতান মাহমুদ, ফুড প্রসেসিং এন্ড প্রিজারভেশন বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. এস এম কামরুল হাসান, সাবেক ডিন ও  ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি বিভাগের প্রফেসর ড. সাজ্জাত হোসেন সরকার, সাবেক ডিন ও ফুড প্রসেসিং এন্ড প্রিজারভেশন বিভাগের অধ্যাপক ড. মারুফ আহমেদসহ বিভাগের  অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ।

মতবিনিময় সভা শেষে ইমিরেটাস প্রফেসর ড. আফজাল হোসেন এফপিই ডিগ্রির বিভিন্ন গবেষণাগার ও বিভাগীয় গবেষকদের উদ্ভাবিত যন্ত্র ও পন্য পরিদর্শন করেন। এসময় শিক্ষক ও গবেষকদের উদ্ভাবিত প্যাটেন্ট প্রাপ্ত মাল্টি ক্রপ ড্রায়ার ও ব্ল্যাকবেরি পাল্প এক্সট্র্যাক্টর, ফ্রিজ ড্রায়ারসহ অন্যান্য প্রযুক্তি ঘুরে দেখেন। এছাড়াও গবেষকদের মাধ্যমে উদ্ভাবিত পণ্য ইউওগার্ট পাউডার, ড্রায়েড ফ্রুটস, ফর্টিফাইড ফুড, ফ্রুট পাউডার, ভেজিটেবল পাউডার সহ অন্যান্য উদ্ভাবন দেখেন। এফপিই ডিগ্রি সংশ্লিষ্ট শিক্ষক ও গবেষকদের এত সাফল্য দেখে তিনি বিস্ময় ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন ।

আরও পড়ুনঃ  রাষ্ট্রপতি বরাবর দেয়া খোলা চিঠিতে যা লিখেছেন শাবির আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা

পরিদর্শন শেষে সাবেক এই উপাচার্য বলেন, আপনাদের গবেষণা কার্যক্রম ও উদ্ভাবিত প্রযুক্তি গুলো দেখে আমার অত্যন্ত ভালো লেগেছে। আমি বিভিন্ন ফোরামে আপনাদের উদ্ভাবিত পণ্য ও প্রযুক্তি গুলো নিয়ে কথা বলার চেষ্টা করবো। আমি আশা করছি, যুগোপোযুগী আরও বিভিন্ন গবেষণার মাধ্যমে হাবিপ্রবিকে একটি অনন্য মাত্রায় নিয়ে যেতে আপনারা কাজ করবেন। বর্তমান উপাচার্য ড. কামরুজ্জামান মহোদয় অত্যন্ত গবেষণা প্রিয় একজন মানুষ। তিনি নিত্য নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও সম্প্রসারণককে বেশ পছন্দ করেন। সর্বোপরি, আপনাদের উদ্ভাবিত এই প্রযুক্তি গুলো আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের উদ্যোগ কৃষিকে যান্ত্রিকিকরণ ও বাণিজ্যিকিকরণে সহায়ক হবে।

ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের সাবেক ডিন ও  ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. সাজ্জাত হোসেন সরকার বলেন, ” আমরা স্যারের প্রতি কৃতজ্ঞ তিনি আমাদের সময় দিয়ে আমাদের অর্জন গুলো ঘুরে দেখার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম কামরুজ্জামান স্যার বরাবরই আমাদেরকে গবেষণায় উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন। তাঁর নেতৃত্ব ও উৎসাহে আমাদের শিক্ষক ও গবেষকরা গবেষণায় আরো এগিয়ে যাবে এটিই আমার প্রত্যাশা।

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস